কোলকাতায় রুশ হামলার গুজব ও ব্রিটিশদের রুশ ফোবিয়া, Stay Curioussis

বর্তমান বিশ্বের সবচেয়ে ব্যাপক আলোচনার বিষয় হলো রাশিয়ার ইউক্রেন আক্রমণ। এ যেনো ইউরোপীয় দেশগুলোর জন্য এক ভয়ঙ্কর দুঃস্বপ্ন! প্রলয়ঙ্কারী এক দানবের মতো ক্রমেই ইউক্রেনকে গুঁড়িয়ে দিচ্ছে রাশিয়া। তবে আমরা অনেকেই জানি না যে, ইউরোপের জন্য এই রুশাতঙ্ক নতুন নয়। অনেক বছর আগেও ইউরোপীয়রা রাশিয়ার ভয়ে আতঙ্কগ্রস্ত দিন পার করেছিলো। কিন্তু সেই আতঙ্কের প্রতিফলন হলো আজ, এতোগুলো বছর পর। কে জানে? হয়তো রাশিয়া শত্রুর মনকে নিশ্চিন্ত করেই আক্রমণ করতে পছন্দ করে।

কোলকাতায় রুশ হামলার গুজব ও ব্রিটিশদের রুশ ফোবিয়া, Stay Curioussis

পুরান কলকাতা

১৮৯০ সাল। সমগ্র ভারতবর্ষে স্থাপিত ব্রিটিশ সাম্রাজ্যের রাজধানী কোলকাতা। কোলকাতা তথা সমগ্র বাংলা তখন ব্রিটিশদের কাছে সুখরাজ্য। হঠাৎ প্রকাশিত হলো একটি গল্পের ইংরেজি অনুবাদ। গল্পের সময়কাল ছিলো প্রকাশের সময় থেকে দুই বছর পরের, অর্থাৎ ভবিষ্যতের এক আগাম বার্তা দেবার জন্যই হয়তো লেখা হয়েছিলো বইটি। গল্পের প্রেক্ষাপট ছিলো কোলকাতায় রুশ হামলা। এমনভাবে গল্পটি লেখা হয়েছিলো, যেনো সত্যিই ১৮৯২ সালে ঘটতে যাচ্ছে এক ধ্বংসাত্মক যুদ্ধ, যেখানে বিজয়ের পতাকা উড়াবে রাশিয়া। ব্রিটিশরা যেনো অবশেষে হারাতে চলেছে তাদের সুবর্ণ সাম্রাজ্য ভারতবর্ষ। রাশিয়াকে নিয়ে ভয় আগে থেকেই কাজ করছিলো ব্রিটিশদের মনে, কিন্তু ১৮৯০ সালে প্রকাশ হওয়া এই গল্পটি যেনো সেই শঙ্কার মাঝে জোয়ার তৈরী করেছিলো। এক অজানা আশঙ্কায় দিন গুণতে শুরু করেছিলো কোলকাতাবাসী ব্রিটিশরা।

কোলকাতায় রুশ হামলার গুজব ও ব্রিটিশদের রুশ ফোবিয়া, Stay Curioussis

ফোর্ট উইলিয়াম

আসলে গল্পটি মূলত রাশিয়ান লেখক ইভান বাতিউশকার লেখা একটি গল্প, যেটিকে ‘দ্য বম্বার্ডমেন্ট অ্যান্ড ক্যাপচার অফ ফোর্ট উইলিয়াম, ক্যালকাটা’ শিরোনামে ইংরেজিতে অনুবাদ করা হয়েছিলো। সে সময় রাশিয়ানদের আতঙ্ক ব্রিটিশদের ভেতরে এতো ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়েছিলো যে, তা রীতিমতো একটি ফোবিয়াতে পরিণত হয়েছিলো। ১৮৩৫ সাল থেকে টানা ১৯০৫ সাল পর্যন্ত ব্রিটিশদের জন্য রাশিয়া ছিলো এক দুঃস্বপ্নের নাম।

সেই সময়ের কাগজপত্রগুলো ঘেঁটে জানা যায়, রাশিয়ার এই অনাগত আক্রমণ ঠেকাতে অনেক ধরনের সামরিক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছিলো। লর্ড বেন্টিঙ্কের কাছে তো একবার খবরও এলো যে, বিশ হাজার পদাতিক ও এক লক্ষ অশ্বারোহী সৈন্য কোলকাতার দিকে এগিয়ে আসছে রাশিয়া থেকে। সেই আক্রমণ ঠেকানোর খরচ বহনের জন্য তিনি ইংল্যান্ড থেকে এক কোটি পাউন্ডের সহায়তাও চেয়েছিলেন।

কোলকাতায় রুশ হামলার গুজব ও ব্রিটিশদের রুশ ফোবিয়া, Stay Curioussis

লর্ড উইলিয়াম বেন্টিঙ্ক

শেষ পর্যন্ত রাশিয়া কিন্তু আর কোলকাতা আক্রমণ করে নি। তবে প্রশ্ন জাগতে পারে, কেনোই বা লেখা হলো কোলকাতা আক্রমণের এই সম্ভাব্য কাহিনী? কি-ই বা ছিলো রুশ আক্রমণের ভয়াবহ গুজব ছড়ানোর উদ্দেশ্য? ভারতবর্ষ অধিকার করা ব্রিটিশদের অহমিকাকে চুরমার করাই হয়তো রাশিয়ানদের উদ্দেশ্য ছিলো। হয়তো ব্রিটিশদের মনে সৃষ্টি হওয়া এই আতঙ্ক রাশিয়ানদের গৌরবের আনন্দকে বাড়িয়ে দিয়েছিলো কয়েক গুণ। মনে মনে তারাও হয়তো হেসেছিলো, শক্তিশালী ইউরোপীয়ানদেরকে নিজেদের খেলার পুতুল বানাতে পেরে।

রেফারেন্সঃ